মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সামপ্রতিক কর্মকান্ড

এক নজরে রাজশাহী জেলায় বিএমডিএ’র কার্যক্রম
(জানুয়ারী/২০০৯ হতে জুন/২০১৮ পর্যন্ত)
 
কার্যক্রম বাস্তবায়ন
 ভূ-পরিস্থ পানি সংরক্ষণ ও সেচ কাজে ব্যবহারের নিমিত্তে খাস খাল পুনঃখনন (কি. মি.) ১৪৫
 ভূ-পরিস্থ পানির জলাধার সৃষ্টি, মৎস্যচাষ ও সম্পূরক সেচ কাজে ব্যবহারের জন্য খাস মজা পুকুর পুনঃখনন (টি) ৭১
 পুনঃখননকৃত খালে ভ‚-পরিস্থ পানি সংরক্ষনের নিমিত্তে ক্রসড্যাম নির্মাণ (টি) ২১
 ভূ-পরিস্থ পানি সেচ কাজে ব্যবহার লক্ষ্যে পদ্মা নদীতে পন্টুন স্থাপন (টি) ০৫ 
 নদী/খালের পানি ব্যবহারের লক্ষ্যে এলএলপি স্থাপন (টি) ১১৭
 সৌরশক্তি চালিত এলএলপি স্থাপন (টি) ৪৬
 পুঠিয়া উপজেলার জগদিশপুরে বারনই নদীতে রাবার ড্যাম নির্মাণ (টি) ০১
 কৃষি পণ্য বাজারজাত করণের লক্ষ্যে পাকা সড়ক নির্মাণ (কি. মি.) ৩৫১.৯৪
 গভীর নলক‚প পূনর্বাসন (টি) ৫১৪
 সেচযন্ত্রে প্রি-পেইড মিটার স্থাপন ও টেলিমিটার স্থাপনের সংখ্যা (টি) ২৯৭৬ ও ৮৫
 ঠাঁঠাঁ বরেন্দ্র এলাকায় সেচ এবং খাবার পানি সরবরাহের নিমিত্তে পাতকুয়া খনন (টি) ০১
 গভীর নলক‚প হতে গ্রামে বিশুদ্ধ পানীয় জল সরবরাহ স্থাপনা নির্মাণ (টি) এবং উপকারভোগীর সংখ্যা (জন) ৪৯৫ ও 
৭৫০০০
 জলবায়ু পরিবর্তন মোকাবেলা ও বজ্রপাত নিরোধে তালবীজ রোপণ (লক্ষ) টি ৯.৫ 
 পরিবেশের ভারসাম্য আনয়নের লক্ষ্যে বনায়ন (বৃক্ষরোপন) (লক্ষ) টি ৭.৫৩
 ভূ-গর্ভস্থ সেচনালা নির্মান (কি. মি.) ৬১৪
 বীজ উৎপাদন (মে. টন) ২৫০০
 ফসলের নিবিড়তা উন্নীত করণ ১১৭% হতে ২২৬% 
 বাৎসরিক সেচকৃত এলাকা (লক্ষ হেক্টর) ২.১৭
 বাৎসরিক উৎপাদিত ফসল (লক্ষ মেঃ টনঃ) ১৭.৩৬
 বাৎসরিক উপকৃত কৃষক (জন) ২,৪৩,৮০২
 আদর্শ কৃষক প্রশিক্ষণ (জন) ৫০০০
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
বর্তমান সরকারের ২০০৯ হতে আগষ্ট, ২০১৮ পর্যন্ত বিগত ১০ বৎসরের সাফল্য
 
◊  ১৪৯৮ কিঃ মিঃ মজা খাল ও ৩৮৬টি খাস মজা পুকুর পুনঃ খনন।
◊  ০৭ টি পন্টুন নির্মাণ ও ৪৬০ টি এল এল পি স্থাপন।
◊  ৬৯৮ টি ক্রসড্যাম নির্মাণ।
◊  ৬৫ মিটার দৈর্ঘ্যরে ০১ টি রাবার ড্যাম নির্মাণ।
◊  ৮৭৭০ কিঃ মিঃ সেচের পানি বিতরণের জন্য ভ‚-গর্ভস্থ পাইপ লাইন নির্মাণ।
◊  ৪৪৪ কিঃমিঃ বিটুমিনাস কার্পেটিং সড়ক নির্মাণ।
◊  ৩৪.৯০ লক্ষ ফলদ, বনজ ও ঔষধি এবং ১৬ লক্ষ তাল বীজ রোপন।
◊  ৩০৩ টি পতক‚য়া (ডাগওয়েল) খনন ও ঠাঁঠাঁ বরেন্দ্র এলাকায় সেচ এবং খাবার পানি ব্যবস্থা করণ।
◊  ২৮৭৭ টি অচালু-অকেজো সেচ যন্ত্র ব্যবহারের নিমিত্তে পূনর্বাসন।
◊  ৭৫০০ টি সেচযন্ত্রে প্রি-পেইড মিটার স্থাপন।
◊  ৪০০ টি সেচযন্ত্রে টেলিমিটার স্থাপন।
◊  ৭২০০ কিঃ মিঃ বিদ্যুৎ লাইন নির্মাণ।
◊  ৬৯৭৪ টি সেচযন্ত্র বিদ্যুতায়ন।
◊  ১২১২ টি খাবার পানি স্থাপনা নির্মানের মাধ্যমে ১২.৭৫ লক্ষ জনসাধারণের খাবার পানি সমস্যা দূরীকরণ।
◊  ২১২০ কিঃ ওয়াট সোলার বিদ্যুতের মাধ্যমে ১০৬ টি সেচযন্ত্র চালুকরণ।
◊  ৪২০০ মেঃ টন বীজ উৎপাদন ও সরবরাহ।
◊  ৭৫০০০ জন কৃষককে আধুনিক কৃষি বিষয়ে প্রশিক্ষণ প্রদান।
◊  ফসলের নিবিড়তা ১১৭% হতে ২২৬% উন্নীত করণ।
◊  প্রতি বছর ৪.৯৬ লক্ষ হেক্টর জমিতে সফলভাবে সেচ প্রদান।
◊  প্রতি বছর প্রায় ৪৫.০০ লক্ষ মেঃ টন খাদ্য শস্য উৎপাদন নিশ্চিতকরণ।

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter